যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে খেপেছে বলিউড

রবিবার, ০৭ অক্টোবর ২০১৮ | ৭:১৪ অপরাহ্ণ | 140 বার

যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে খেপেছে বলিউড

যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে শুরু করেছে বলিউড। অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের সঙ্গে ২০০৮ সালে ঘটে যাওয়া ঘটনায় তাঁর পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন বলিউড তারকারা। নানাভাবে তনুশ্রীর পাশে দাঁড়াচ্ছেন অভিনয়শিল্পী আর কলাকুশলীরা। এমনকি কেউ কেউ নিজের গোপন হয়রানির ঘটনাও প্রকাশ করে সমবেদনা জানিয়েছেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক তনুশ্রী দত্ত প্রসঙ্গে তারকাদের মন্তব্য ও বক্তব্যগুলো।

স্বপ্না পাব্বির সঙ্গে প্রায়ই ঘটত এসব
ওয়েব সিরিজের অভিনেত্রী স্বপ্না পাব্বি। তনুশ্রীর দত্তের পর যৌন হয়রানি প্রসঙ্গে কথা বলেছেন তিনিও। গত বৃহস্পতিবার ইনস্টাগ্রামে এ-সংক্রান্ত একটি পোস্ট লিখে নিজের যৌন হয়রানির অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করেছেন। লিখেছেন, ‘আমাকেও তনুশ্রীর মতো বহুবার ওই অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছে। প্রতিবাদ করতে গেলেই চুপ করিয়ে দেওয়া হতো। উল্টো আমার বক্তব্য বিকৃত করে উপস্থাপন করা হয়। ওই সময় অনেক নারী সহকর্মী ছিল, যারা আমার পাশে এসে দাঁড়ায়নি৷’
স্বপ্না আরও লিখেছেন, ‘একটা গানের শুটিংয়ের সময় আমাকে বিকিনি পরতে বলা হয়। আমার তাতে আপত্তি ছিল না, তবে অস্বস্তি বোধ করছিলাম। সেটা তাঁদের জানাতেই দেখি আমাকে নিয়ে হাসাহাসি শুরু করে দিয়েছে। প্রযোজক নিজেই আপত্তিকর সব মন্তব্য করছিল, আর অন্যরা চুপচাপ দাঁড়িয়ে সেসব শুনছিল।’

কাজল মনে করেন এসবই বাস্তবতা
নিজের নতুন ছবি ‘হেলিকপ্টার এলা’র প্রচারণার সময় কাজল বলেছেন, যৌন হয়রানি বাস্তবতা। নিজের সে রকম অভিজ্ঞতা না থাকলেও তিনি এসব শুনেছেন গুজবের আদলে। কাজল বলেছেন, ‘এ রকম ঘটনা কখনো ঘটতে দেখিনি, কেবল শুনেছি। সেটাও গুজবের মতো করে। এসব জানবেনই বা কীভাবে? কেউ কি এসে বলবে যে কেবলই ‘সেটা’ করে এলাম! জানি না ঘটনা কতটা সত্য, কিন্তু নিজের সামনে এসব হতে দেখলে আমি এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিতাম। মনে হয় না আমার সামনে আর কখনো ঘটবে।’
কাজল মনে করেন এ ধরনের ঘটনা কেবল চলচ্চিত্র অঙ্গনেই নয়, সবখানেই ঘটে। তনুশ্রী দত্তের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, তিনি যে অভিযোগটি করেছেন, সেটি বাস্তবতা। সর্বত্র এসবের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার সময় হয়ে গেছে।’ কাজল মনে করেন ভারতেও #মিটু আন্দোলন শুরু করা দরকার। সঙ্গে কেউ থাকুক বা না থাকুক, নিজেকেই জেগে উঠতে হবে, নিজের জন্য অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। সবাই যখন আপনাকে দেখবে, তাঁরাও জেগে উঠবে।

তনুশ্রীর প্রশংসায় বরুণ ধাওয়ান
তনুশ্রী দত্তের পাশে দাঁড়িয়েছেন আশা ভোসলে, ফারহান আখতার, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সোনম কাপুর, টুইঙ্কল খান্না, পরিণীতি চোপড়া, রিচা চাড্ডা, স্বরা ভাস্কর, রাভিনা টেন্ডনসহ প্রমুখ তারকা। তাঁদের সঙ্গে নতুন করে যুক্ত হয়েছে বরুণ ধাওয়ানের নাম। মুম্বাই শহরের একটি অনুষ্ঠানে তিনি তনুশ্রীর সাহসের প্রশংসা করেছেন। অভিযোগের বিস্তারিত তিনি জানতেন না, তবে যেটুকু শুনেছেন, তাতে তনুশ্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। তাঁর দাবি, নারী-পুরুষ-শিশু বলিউডে সবার কাজের সুস্থ পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন, ‘তনুশ্রীর প্রতি আমার শ্রদ্ধা বেড়ে গেছে এটা জানার পর যে, তিনি অন্তত জনসমক্ষে বিষয়টিকে তুলে ধরেছেন।’

ঘটনা সত্য, বলেছেন ছবির সহকারী পরিচালক শাইনি শেঠি
১০ বছর আগের সেই ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির সহকারী পরিচালক শাইনি শেঠি নিশ্চিত করেছেন, ঘটনা সত্য। একটি অনুষ্ঠানে সরাসরি ফোনে জানতে চাওয়া হলে তিনি তনুশ্রী দত্তের ঘটনা সত্য বলে স্বীকার করেন। পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে যা কিছু ঘটছে, এসবকে সমর্থন জানিয়েছেন তিনি। ঘটনার পর অস্বস্তি বোধ করেছিলেন তনুশ্রী, সেটা আমি টের পেয়েছিলাম। একজন মেয়ে হিসেবে আমার সেটা বোঝারই কথা। সেটা আমার প্রথম ছবি ছিল, আমি ছিলাম সহকারী পরিচালক। ফলে ওই সময় আমার কিছু করার ছিল না। তনুশ্রী যা করেছেন, সেটার জন্য আজ আমি গর্বিত।

ভারতে এ আন্দোলন সফল হবে না: তনুশ্রী
তনুশ্রী মনে করছেন, ভারতে এই আন্দোলন সফল হবে না। পরিচিতি আছে বলে তার বিষয়টি নিয়ে কথা হচ্ছে। কিন্তু নিয়মিত ও সর্বত্র ঘটতে থাকা এসব ঘটনা থেকে দেশকে সোচ্চার হতে হবে। প্রতিবাদ করেও যে খুব একটা লাভ হয়েছে, তা নয়। বলিউডের একাংশ তার পাশে আছে বটে, কিন্তু তাতে কী?
প্রতিবাদ করে পার পাননি তনুশ্রী। গত বৃহস্পতিবার আইনি নোটিশ পেয়েছেন তনুশ্রী দত্ত। অভিনেতা নানা পাটেকার ও পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রীর আইনজীবীরা এ নোটিশ পাঠিয়েছেন। একে ‘ভারতে যৌন হেনস্তা, অপমান ও অবিচারের বিরুদ্ধে কথা বলার পুরস্কার’ বলে ব্যঙ্গ করেছেন এই অভিনেত্রী। এমনকি একটি রাজনৈতিক দলের কর্মীরা ইতিমধ্যে তাঁকে হুমকি-ধমকিও দিতে শুরু করেছে। এসব কারণে রীতিমতো নির্বাসনে চলে গিয়েছিলেন তিনি। ফিরে এসে খুব একটা লাভবান হননি বলে মনে করছেন তিনি।

দক্ষিণী নায়ককে থাপ্পড় মেরেছিলেন রাধিকা
পুরুষশাসিত চলচ্চিত্র অঙ্গনে মেয়েদের উপহাস করলেও কিছুই করার থাকে না। কিন্তু চুপ থাকতে পারেননি রাধিকা আপ্তে। মুম্বাই মিররের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, দক্ষিণী এক তারকা অভিনেতাকে থাপ্পড় মেরে প্রতিবাদ করেছিলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘শুটিং সেটে প্রথম দিন যাওয়ার পরই লোকটা আমার পায়ে সুড়সুড়ি দিচ্ছিল। জীবনেও যার সঙ্গে দেখা হয়নি, তার থেকে এ রকম আচরণ সহ্য করা যায় না। দিয়েছি কশে এক থাপ্পড়।’

মেয়েদের সম্মান করুন: শাহরুখ
বলিউডে যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন শাহরুখ খান। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের এমনটি হতে দেওয়া উচিত নয়। নারীর অনুভূতিকে আমাদের সম্মান জানাতে হবে। তাদের সঙ্গে অসদাচরণ করলে সেসবের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নিতে হবে। আপনার চোখের সামনে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে দেখলে রুখে দিন।’
শাহরুখ বলেন, নারীদের অবস্থান অনেক ক্ষেত্রে পুরুষের ওপরে। আমি বলতে লজ্জা পাই না যে, নারী যখন মা, স্ত্রী, বোন, বান্ধবী তখন তারা আমার কাছে সম্মানের। যেভাবেই তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ হোক, সেটা ভয়াবহ।’

ছেলেদের সঙ্গেও হচ্ছে: সানি লিওন
সানি লিওন বলেছেন, অনেক তরুণ মেয়ে আসছে অভিনয়ে। তাঁদের সঙ্গে প্রতিনিয়ত যৌন হয়রানিমূলক আচরণ করা হচ্ছে। শুধু নারী কেন, পুরুষদের সঙ্গেও এসব করা হয়। তাদের সবার পাশেই আমাদের দাঁড়াতে হবে। সোচ্চার হয়ে বলতে হবে, এসব ঠিক নয়। প্রতিবাদ না করলে এই পরিস্থিতি বদলাবে না।
‘তেরা ইনতেজার’ ছবিতে সানির সহশিল্পী আরবাজ খান বলেছেন, এ ধরনের ঘটনার কথা আমিও জানি। প্রত্যেকেরই নিজের মতো করে এসব মোকাবিলা করতে হবে। ব্যক্তিজীবন বা কর্মক্ষেত্র যেখানেই ঘটুক, যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে হবে।

নেহা বললেন: গলা ছাড়ুন
নেহা ধুপিয়া আহ্বান জানালেন, যার সঙ্গেই ঘটুক। কথা বলুন। আজ আপনার সঙ্গে ঘটেছে? কাল আরেকজনের সঙ্গে ঘটবে। সুতরাং চুপ থাকবেন না।

২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির আইটেম গানের সময় শুটিং সেটে ঘটে এক অস্বস্তিকর ঘটনা। তনুশ্রীর গায়ে আপত্তিকরভাবে হাত রেখেছিলেন নানা পাটেকার। সে সময়ে অভিযোগ করে সুবিধা করতে পারেননি তনুশ্রী দত্ত। হলিউডে #মিটু আন্দোলন শুরুর পর নতুন করে ১০ বছর পর সেই ঘটনাকে সামনে টেনে এনেছেন তিনি। এতে বলিউডের একটি পক্ষ তাঁকে সাধুবাদ জানাচ্ছে, পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। অন্যদিকে আর একটি পক্ষ সমর্থন দিচ্ছে নানা পাটেকারকে। দীপিকা পাড়ুকোন, রণবীর সিং, বিবেক ওবেরয়, অর্জুন কাপুর, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, বিদ্যা বালান, সারা ভাস্বর, কঙ্কণা সেন শর্মা, কঙ্গনা রনৌত, কালকি কোচিন যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া

 

সম্রাটের বিরুদ্ধে অস্ত্র-মাদক মামলার তদন্তে ডিবি

Design & Developed by: Ifad Technology