বীমা কোম্পানি চিটার-বাটপারি প্রতিষ্ঠান নয়, এটা সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান

রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ | ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ | 64 বার

বীমা কোম্পানি চিটার-বাটপারি প্রতিষ্ঠান নয়, এটা সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান

খুলনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, বীমা কোম্পানিকে চিটার-বাটপারি প্রতিষ্ঠান মনে করা হতো। কিন্তু এ ধারণা এখন উঠে যাচ্ছে। বীমা কোনো চিটার-বাটপারি প্রতিষ্ঠান নয়। এটি একটি সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান। বীমা কোম্পানিগুলোকে আইনকানুন মেনে, গ্রাহক সেবার বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করতে হবে।

আজ শুক্রবার খুলনা বীমা মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান পাটোয়ারী। প্রতিমন্ত্রী বলেন, উন্নত দেশে বীমা নিয়ে সাধারণ মানুষ খুব সচেতন থাকেন। তারা সবার আগে বীমা টাকা পরিশোধ করেন। আমাদের দেশে গ্রাহকদের মাঝে এ নিয়ে অনিহা রয়েছে।

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, আজ দেখলাম একজন ৮০ হাজার টাকা জমা করে ১ কোটি ১৮ লাখ টাকা পেলেন। এতে পরিবারটির আর্থিক নিরাপত্তা দৃঢ় হলো। আমিও আর্থিক নিরাপত্তার কথা ভাবি। আমি ভাবি, কবে আমার এক কোটি টাকা হবে। প্রতিটি পরিবারই আর্থিক নিরাপত্তার কথা ভাবে। বীমা কোম্পানিগুলোকে এ বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা আলফা ইন্স্যুরেন্সে চাকরি করতেন। স্বাধীনতার পর তিনি জীবন বীমা ও সাধারণ বীমা করপোরেশন সরকারি করেন। জাতির পিতা ১ মার্চ বীমা কোম্পানিতে জয়েন করেছেন। জাতির পিতাকে স্মরণ করে ১ মার্চ বীমা দিবস ঘোষণা করা হয়েছে। বর্তমান সরকার বীমার উন্নয়নে সচেষ্ট ভূমিকা পালন করছে। আজ খুলনার এ মেলায় ৭৮টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। আমি মনে করি, এ মেলা খুলনাবাসিদের বীমার প্রতি সচেতন করবে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখতেন এদেশের মানুষ মোটা ভাত পাবে, পড়নের কাপড় পাবে। আমাদের প্রত্যেকের চিকিৎসা হবে। আমাদের সন্তানেরা লেখাপড়া করে মানুষের মতো মানুষ হবে। আজ তার কন্যা স্বপ্ন দেখেন উন্নত দেশের। তার স্বপ্ন বাস্তবায়নে বীমাখাতকে কাজ করতে হবে। গ্রাহক সেবা আরো উন্নত করতে হবে।

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, সাধারণ মানুষকে বীমা সুবিধা সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। গ্রাহকরা তাদের বীমা টাকা সঠিকভাবে জমা করে সে বিষয়ে তাদের সচেতন করতে হবে। প্রতিটি বিষয়ের নিয়ম আছে। বীমারও কিছু নিয়ম আছে তা বীমা কোম্পানিকে যেমন পালন করতে হবে তেমনি গ্রাহককে তা পালন করতে হবে।

অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণের নির্দেশনা

Design & Developed by: Ifad Technology