ঢাকা, শুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নজরদারিতে তাহসান-মিথিলা-ফারিয়া, যেকোনো সময়ে গ্রেফতার

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির হয়ে অর্থ আত্মসাতে সহায়তার অভিযোগে তাহসান খান, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়াকে যেকেনো সময়ে গ্রেফতার করা হতে পারে।
শুক্রবার দুপুরে ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান গণমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিন দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় গত ৪ ডিসেম্বর ইভ্যালির এক গ্রাহকের করা মামলায় তারা নজরদারিতে রয়েছেন।

ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, চটকদার বিজ্ঞাপন ও বেশি মুনাফার লোভ দেখিয়ে হাজারো গ্রাহককে এরই মধ্যে পথে বসিয়েছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি। এমন অভিযোগে ৪ ডিসেম্বর এক ব্যক্তি মামলা করেন।

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানটির প্রতারণার শুরু থেকে সংযুক্ত করা হয়েছিল নামিদামি তারকাদের। অনেকের অভিযোগ জনপ্রিয় এসব তারকাদের দেওয়া মিথ্যা প্রতিশ্রুতির ফাঁদে পা দিয়েই সর্বস্বান্ত হয়েছেন তারা। এবার তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সাদ স্যাম রহমান নামে এক ভুক্তভোগী।

মামলার এজাহারে ভুক্তভোগী অভিযোগ করেন, ইভ্যালি থেকে তিন লাখ ১৮ হাজার টাকায় মোটরসাইকেল অর্ডার করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে পণ্য ডেলিভারি দেওয়া হয়নি, টাকাও ফেরত পাননি।

মামলায় আসামি করা হয়েছে নয় জনকে। ইভ্যালির এমডি রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা ছাড়াও মামলায় পাঁচ নম্বর আসামি করা হয়েছে সঙ্গীত শিল্পী তাহসানকে। আট ও নয় নম্বর আসামি করা হয়েছে অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও রাফিয়াদ রশিদ মিথিলাকে।

এ মামলাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন রমনা থানার পুলিশের এ কর্মকর্তা।