ঢাকা, শনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে কিস্তির টাকা শোধ করেন জাহ্নবী

বলিউডের নতুন প্রজন্মের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীদেবী কন্যা জাহ্নবী কাপুর। জাহ্নবীর বাবা বনি কাপুর, বলতে গেলে বলিউড শাসনই করে গেছেন। বনি কাপুর-শ্রীদেবীর কন্যা হওয়ায় সিনেমার যাত্রাপথে কোথাও কোনো অসুবিধার মধ্যেই পড়তে হয়নি – এমন একটা চিন্তা রয়েছে অনেকের মধ্যেই।
পর্দায় জাহ্নবী হয়তো নবাগত নায়িকা। যার কারণে অনেকে মনে করেন অভিনয়ের জন্য যে প্রতিভা দরকার, তার ছিটেফোঁটাও নেই শ্রীদেবী কন্যার মাঝে। কিন্তু একটি কথা স্বীকার করতে হবে – জাহ্নবীর মাথায় বুদ্ধি খেলে ভালই ।

সম্প্রতি ‘মিলি’ মুক্তির পর এক সাক্ষাতকারে শ্রীদেবী কন্যা জানান, কাজের ফাঁকে সামাজিক মাধ্যমে যা কিছু পোস্ট করেন, তা সবই নাকি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত! সেই সাথে আরো জানান, সামাজিক মাধ্যমের উপার্জন থেকেই নাকি তিনি বাড়ির “ইএমআই দেন,” আর বাকিটা হাতখরচ!

এসময় তাঁর সম্পর্কে মানুষের ধারণা নিয়েও মুখ খুলেন জাহ্নবী। বললেন, “অনেক সময়েই লোককে বলতে শুনেছি, আমি আর আমার পর্দায় উপস্থিতি এক নয়। এমনিতে আমার চটক রয়েছে। এ দিকে পর্দায় সাদামাটা তরুণীর চরিত্রে। আমি বলব, সেটাই তো শিল্প! সেটাই আমার কাজ। এই হিসেবনিকেশ না করাই তো ভাল। আমায় যদি কোনও পার্টিতে মণীশ মলহোত্রের শাড়িতে দেখে চমকে যান, তা হলে মুশকিল। ছবিতে তো কুর্তি পরে দেখবেনই। দুটো এক হয় কী ভাবে!”

এর পরই জাহ্নবীর দাবি, সামাজিক মাধ্যমটা মজা করেই ব্যবহার করেন। এতে ইএমআই দিতে নাকি তার বেশ সুবিধে হয়। জাহ্নবীর কথায়, “আমায় যদি পাঁচটা লোকের ‘কিউট’ মনে হয়, তা হলে আরও বেশি বেশি নজরে আসব। বেশি লোকে লাইক করবে আমার ছবি। তা থেকে কয়েকটা সংস্থার প্রস্তাব আসবে। মোটের উপর ধারের কিস্তি মেটানো সহজ হবে আমার পক্ষেই।”

উল্লেখ্য, গত ৪ নভেম্বর মুক্তি পেয়েছে জাহ্নবীর নতুন সিনেমা ‘মিলি’। আপাতত নতুন সিনেমার প্রচারে ব্যস্ত বলিউডের হাল প্রজন্মের অন্যতম উজ্জ্বল এই মুখ।