বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০১৯ | ৫:৪৪ অপরাহ্ণ | 28 বার

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

 উপাচার্যের পনের দিনের ছুটি নয়; আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা চাচ্ছে পদত্যাগ বা তার কার্যকাল ২৮ মে পর্যন্ত ছুটিতে থাকা। এই দাবি মানা না হলে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে এগারোটা থেকে লাগাতার আন্দোলনের মহাসড়ক অবরোধের দ্বিতীয় দিনে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে ছাত্র-ছাত্রীরা, যা চলবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত। অবরোধের কারণে সড়কের উভয় পাশে দেড় কিলোমিটার ব্যাপী অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়েছে। অনেক যাত্রী পায়ে হেঁটে গন্তব্যে পৌঁছেছে।

অপরদিকে বিশ^বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. মো. হাসিনুর রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে জানিয়েছেন উপাচার্য ড. এস এম ইমামমুল হক ১১ এপ্রিল থেকে ২৫ এপ্রিল পনের দিনের ছুটির জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিবের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন।

শিক্ষার্থীরা বলছে, শিক্ষার্থীদের ‘রাজাকারের বাচ্চা’ বলায় এই উপাচার্য ক্যাম্পাসে ফিরে আসার আর কোন যৌক্তিকতা নেই। উপচার্য যে ১৫ দিনের ছুটি নিয়েছে, এটাকে আমরা প্রত্যাখান করছি। আমরা চাই তার পদত্যাগ। এক সেকেন্ডের জন্যও তিনি কার্যদিবস পালন করতে পারবেন না। তার যে মেয়াদ আছে, সেই কয়টি দিনের জন্য তাকে ছুটি নিতে হবে। তিনি পদত্যাগ না করলে এই আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য’ গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের অবগত না করায় প্রতিবাদ করেন শিক্ষার্থীরা। এতে প্রতিবাদকারী শিক্ষার্থীদের ‘রাজাকারের বাচ্চা’ বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এসএম ইমামুল হক। এরই প্রতিবাদে ২৬ মার্চ বিকেল থেকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা উপচার্যের ওই উক্তির জন্য ক্ষমা চাওয়া সহ ৫ দফা দাবী আদায়ে আন্দোলন শুরু করেন। তবে শিক্ষার্থীদেও আন্দোলনের ধারবাহিকতায় উপচার্য়ের পদত্যাগ এক দফা দাবীতে পরিণত হয়

যৌনতার রানি ছিলাম,দেখেছি ওদের উন্মত্ত তেজ এখন বুড়ো মাঝবয়সী বন্ধুদের উপভোগ করি

Development by: Creative it Solution

error: Content is protected !!