ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ চারজন নিহত

গোপালগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- গোপালগঞ্জ শেখ ফজিলাতুন্নেছা সরকারী মহিলা কলেজের সমাজ কল্যাণ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পিনাকী রঞ্জন দাস(৫৭), এম.এইচ.খান ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক বাবুল সরকার(৪৮), ইমাদ পরিবহনের সুপারভাইজার জুয়েল মোল্লা(৪২) ও সদর উপজেলার ঘোষেরচর দক্ষিনপাড়া গ্রামের বাবু শেখের ছেলে ৫ম শ্রেণির ছাত্র রামিম শেখ (১০)।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোহাম্মদ আনিচুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শনিবার (১৮ মে) সন্ধ্যার পর সদর উপজেলার চাপাইল সড়কে ট্রলির নিচে চাপা পড়ে রামিম শেখ মারাত্মক আহত হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে রাত ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

অপরদিকে, রাত সাড়ে ৮টার দিকে কাশিয়ানী থেকে মোটরসাইকেলে করে গোপালগঞ্জ মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক পিনাকী রঞ্জন দাস (৫৭), এম.এইচ.খান কলেজের অধ্যাপক বাবুল সরকার (৪৮) এবং ইমাদ পরিবহনের সুপারভাইজার জুয়েল মোল্লা (৪২) জেলা শহরে আসছিলেন। শহরের কাছেই হরিদাসপুর এলাকায় পৌঁছালে তাদের মোটরসাইকেলটিকে একটি দ্রুতগামৗ বাস পিছন দিক থেকে ধাক্কা দিলে তারা ছিটকে পড়ে তিনজনই মারাত্মক আহত হয়। তাদেরকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিস্ট জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুপারভাইজার জুয়েল মোল্লা মারা যায়।

 

অপর আহত দুইজন গোপালগঞ্জ মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক পিনাকী রঞ্জন দাস ও এম.এইচ.খান ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক বাবুল সরকারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে তারা দুইজন মারা যান।