ঢাকা, সোমবার, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্যাংকগুলোকে সিএসআর খাতে বরাদ্দ বাড়ানোর নির্দেশ

দেশের ব্যাংকগুলোকে করপোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) কার্যক্রমে খরচ বাড়াতে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই বছর সিএসআর খাতে ব্যাংকগুলো যে টাকা বরাদ্দ রেখেছে, তার সঙ্গে নিট মুনাফার এক শতাংশ অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সোমবার (২৬ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ’ থেকে এই সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

নির্দেশনা অনুযায়ী, ২০২১ সালে সিএসআর খাতে কোনো ব্যাংক যদি এক কোটি টাকা বরাদ্দ রাখে, ওই ব্যাংকের ২০২০ সালে নিট মুনাফা যদি ১০০ কোটি টাকা হয়, তাহলে অতিরিক্ত এক কোটিসহ মোট দুই কোটি টাকা এ বছর সিএসআর খাতে ব্যয় করতে হবে।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের পাঠানো এই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সম্প্রতি বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনা সংক্রমণের হার আবারও বেড়ে চলেছে। করোনার সংক্রমণজনিত কারণে দারিদ্র‌্যের হার বেড়ে যাওয়ায় বিপদগ্রস্ত, কর্মহীন দরিদ্র, ছিন্নমূল, দুস্থ, অসহায় জনগোষ্ঠীর নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী, স্বাস্থ্য-সুরক্ষা সামগ্রীসহ চিকিৎসা ব্যয় নির্বাহ এবং কর্মহীন মানুষের জীবিকা নির্বাহে প্রয়োজনীয় সহায়তা জরুরি। এজন্য সামাজিক দায়বদ্ধতা পরিপালনের উদ্দেশ্যে তফসিলি ব্যাংকগুলো ২০২১ সালের সিএসআই বাজেটে অতিরিক্ত বরাদ্দের মাধ্যমে বিশেষ সিএসআর কার্যক্রম পরিচালনার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।

বিশেষ সিএসআর কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে ব্যাংকগুলো ২০২০ সালের নিরীক্ষিত (হিসাব বিবরণী চূড়ান্ত না হওয়ার ক্ষেত্রে অনিরীক্ষিত) হিসাব অনুযায়ী যে পরিমাণ নিট মুনাফা অর্জন করেছে, তার ১ (এক) শতাংশের সমপরিমাণ অর্থ ২০২১ সালের সিএসআর খাতের বাজেটে ইতোমধ্যে বরাদ্দ অর্থের অতিরিক্ত হিসেবে বরাদ্দ দিতে হবে।

সিএসআর খাতে বরাদ্দ অতিরিক্ত অর্থ স্থানান্তর নিশ্চিত করে তা ১৫ মে’র মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাসটেইনেবল ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টকে জানাতে হবে।

অতিরিক্ত বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যাংকগুলোর ২০২২ সাল থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত ০৩ বছরে সিএসআর খাতে বরাদ্দ ও ব্যয় হওয়া অর্থের সঙ্গে সমন্বয় করা যাবে।

এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার নিতেও বাংলাদেশ ব‌্যাংক থেকে বলা হয়েছে।