ঢাকা, সোমবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ডাসারে অপহরনের পর কলেজ ছাত্রী উদ্ধার ॥ সাবেক ইউপি সদস্য গ্রেফতার

অপহরন মামলার ৮দিন পরে মাদারীপুরের ডাসারে এক কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় লিটন বাড়ৈ-(৪০) নামে এক সাবেক ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ শনিবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে ডাসার থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামী লিটন বাড়ৈ নবগ্রাম ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য।
পুলিশ, মামলা ও ভূক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার নবগ্রাম ইউনিয়নের নবগ্রাম গ্রামের ওই কলেজছাত্রী গত ১৫ আগস্ট সন্ধ্যায় নিজ বাড়ী থেকে একই এলাকায় তার মামা বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা একই গ্রামের যুবরাজ বাড়ৈর লম্পট ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য লিটন বাড়ৈ তার লোকজন নিয়ে কলেজছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে অপহরন করে নিয়ে যায়। এই অপহরেন ঘটনায় কলেজছাত্রীর মা বাদী হয়ে গত ১ সেপ্টেম্বর আদালতে লিটন বাড়ৈসহ দুই জনকে আসামী করে একটি অপহরন মামলা দায়ের করেন। পরে ডাসার থানা এসআই অখিল চন্দ্র রায় সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে কালকিনি উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের সুর্য্যমনি গ্রামের একটি বাড়ি থেকে পলাতক অবস্থায় লিটন বাড়ৈকে গ্রেফতার করে।
মামলার বাদী কলেজছাত্রীর মা বলেন, আমার কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে অপহরন করেছে লিটন মেম্বর। তাই আমি তার বিরুদ্ধে মামলা করেছি। আমি ওর ফাঁসি চাই।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই এলাকার বেশ কয়েকজন বলেন, গ্রেফতাকৃত লিটন মেম্বার এর আগেও ভিন্ন ধর্মের এক কিশোরী মেয়েকে অপহারন করেছিলেন। এবং ১৯ সালে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করায় তার বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা হয়েছিল। সেই মামলায় তিনি গ্রেফতার হয়ে জামিনে আসেন। তার বিরুদ্ধে এ ছারাও একাধীক নারী কেলেংকারির অভিযোগ রয়েছে।
এ ব্যাপরে ডাসার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ হাসানুজ্জামান বলেন, আমরা আদালত থেকে আদেশ পাওয়ার পর তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে তাকে গ্রেফতার করি এবং তাকে মাদারীপুর আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করেছি।