ঢাকা, সোমবার, ২৫শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কালকিনিতে ইউপি সদস্যর বসতঘরে হাতবোমা বিস্ফোরন, আহত-৪

মাদারীপুরের কালকিনিতে এক ইউপি সদস্যর বসতঘরে হাত বোমা বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটে। এতে করে আহত হয়েছে কমপক্ষে ৪ জন যুবক। আহতদের মধ্যে দুইজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার সিডিখান ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মন্নান মোল্লার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, সিডিখান ইউনিয়নেন মাথাভাঙ্গা গ্রামের নুরাই বেপারীর ছেলে ও সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য শ্যামলী বেগমের স্বামী ইয়ামিন বেপারী-(৩৭), একই এলাকার ফুলচান সরদারের ছেলে মিন্টু সরদার-(৩৪) ও দক্ষিনকান্দি গ্রামের মৌজালী শিকদারের ছেলে সুমন শিকদার (২৬)। বোমা বিস্ফোরণে ওই ইউপি সদস্যর ঘরটির চালা ও বেড়ার কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এদিকে এ ঘটনায় সাধারন জনগনের মাঝে চড়ম আতঙ্ক বিরাজ করছে।
পুলিশ ও এলাকা সূত্র জানায়, কালকিনি উপজেলার সিডিখান ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মন্নান ওরফে মোনাই মোল্লার টিনশেডের বসতঘরে রাতে হঠাত করে বোমা বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটে। তবে এলাকাবাসীর অভিযোগ ওই মেম্বরের বসতঘরে হাতবোমা বানানোর কাজ করছিলেন ইয়ামিন, সুমনসহ কয়েক যুবক। এসময় তাঁদের বানানো একটি বোমা ঘরের মধ্যে হঠাৎ বিস্ফোরিত হয়। বিস্ফোরণের শব্দ শুনে স্থানীয় লোকজন কালকিনি থানা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ইয়ামিন ও সুমনকে উদ্ধার করে প্রথমে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে তাঁদের পাঠানো হয় বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
সিডিখান এলাকার কয়েকজনের দাবি, এর আগেও একাধিকবার এই এলাকায় হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের লোকজন হাতবোমা বানানোর কাজ করছিলেন।
কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইশতিয়াক আশফাক রাসেল বলেন, খবর পেয়ে আমরা ওই বাড়িতে যাই। সেখানে গিয়ে দেখি, বোমা বিস্ফোরণে ঘরটির চালা ও বেড়ার কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঘরটির চারপাশে বোমা তৈরিতে ব্যবহৃত কাচের টুকরা, বারুদ ছড়িয়েছিটিয়ে রয়েছে। পুলিশ বিল থেকে ইয়ামিন ও সুমনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ান রয়েছে।