ঢাকা, বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডলার ১০ হাজারের বেশি রাখলে কঠোর ব্যবস্থা

ডলার সরবরাহ বাড়াতে এবার কোনো বাংলাদেশির কাছে ১০ হাজারের বেশি ডলার থাকলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যে সকল প্রবাসী তাদের সঙ্গে আনা ১০ হাজারের বেশি ডলার বা সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা রেখে দিয়েছেন তাদের আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সেগুলো অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক বা লাইসেন্সধারী মানি এক্সচেঞ্জে বিক্রির নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বুধবার (৩১ আগস্ট) কেন্দ্রীয় ব্যাংক এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

একে বলা হয়েছে, প্রবাসী বাংলাদেশি বিদেশ থেকে আনা ১০ হাজার মার্কিন ডলার বা সমমূল্যমানের বৈদেশিক মুদ্রা নিজের কাছে বা অনুমোদিত ডিলার ব্যাংকে রেসিডেন্ট ফরেন কারেন্সি ডিপোজিট হিসাবে জমা রাখতে পারবেন, পরবর্তী বিদেশ যাত্রায় ওই বৈদেশিক মুদ্রা সঙ্গে নিয়েও যেতে পারবেন। তবে ১০ হাজার মার্কিন ডলারের অতিরিক্ত পরিমাণ আনা বৈদেশিক মুদ্রা দেশে আসার এক মাসের মধ্যে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক বা লাইসেন্সধারী মানিচেঞ্জারের কাছে বিক্রি বা রেসিডেন্ট ফরেন কারেন্সি ডিপোজিট হিসাবে জমা রাখা বাধ্যতামূলক। উপরিউক্ত প্রাধিকার বহির্ভূত বৈদেশিক মুদ্রা ধারণ করা ‘ফরেন এক্সচেঞ্জ রেগুলেশন অ্যাক্ট, ১৯৪৭’ এর আওতায় দণ্ডনীয় অপরাধ।

প্রাধিকারভুক্ত নয় এমন বৈদেশিক মুদ্রা প্রবাসী বাংলাদেশির কাছে থাকলে তা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংকে বা লাইসেন্সধারী মানিচেঞ্জারের কাছে বিক্রি করতে হবে। নির্দিষ্ট সময়ের পর অননুমোদিত বৈদেশিক মুদ্রা প্রবাসীর কাছে পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।