ঢাকা, শনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পদ্মাসেতু: ৯০ দিনে দক্ষিণাঞ্চলে আমূল পরির্বতন

গৌরবের পদ্মাসেতু চালুর ৯০ দিন পূর্ণ হলো রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর)। গত ২৫ জুন বাঙালির স্বপ্নের এ সেতু উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরদিন থেকে পদ্মাসেতুতে শুরু হয় যানবাহন চলাচল। এই তিন মাসে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে এসেছে আমূল পরিবর্তন। দৃশ্যমান হয়েছে পদ্মাসেতুর সুফল।
যোগাযোগের মাইলফলক হিসেবে বরিশাল বিসিকে গড়ে উঠেছে প্রথম পোশাক তৈরির কারখানা, বোতলজাত পানি পরিশোধনাগার ও কমফোর্টারের কারখানা। মাছের রাজা ইলিশ শুধু সারাদেশেই নয়, একদিনের মধ্যে চলে যাচ্ছে কলকাতাতেও।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সবক্ষেত্রে ইতিবাচক ব্যাপক পরিবর্তন আসায় এ অঞ্চলের অর্থনীতি এখন চাঙা।

যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো হওয়ায় প্রথম পরিবর্তনের ছোঁয়া লেগেছে যাতায়াত ব্যবস্থায়। বিলাসবহুল বাসগুলো দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক। পদ্মাসেতু চালুর পর নামিদামি ২০-২৫টি কোম্পানির প্রায় ৩০০ বিলাসবহুল বাস সরাসরি যাত্রী পরিবহন করছে। সময় লাগছে মাত্র ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টা।

বরিশাল বাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক কি‌শোর কুমার দে বলেন, পদ্মাসেতুর কারণে সড়কপথে যাত্রী বেড়েছে। গ্রিন লাইনসহ বিভিন্ন বিলাসবহুল বাস কোম্পানি এখন বরিশালে তাদের শাখা খুলেছে। আরামদায়ক ভ্রমণ ও যাতায়াত দ্রুত হওয়ায় যাত্রী বেড়েছে কয়েকগুণ। এছাড়া কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে বেকার যুবকদের।

শিল্প উদ্যোক্তা এস এম জাকির হোসেন বলেন, পদ্মাসেতু আমাদের জন্য আশীর্বাদ। বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলে মাত্র ৩ মাসের মধ্যে এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো এরই মধ্যে তাদের ব্যবসা স্থাপন করতে শুরু করেছে। আমাদের মতো ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি বড় বড় শিল্পপ্রতিষ্ঠান সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বরিশালমুখী হবে।

বরিশাল চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজের সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, বরিশালে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নতুন করে গড়ে উঠছে। অনেকেই জমি কিনছেন। এরই মধ্যে বিসিকে গার্মেন্টসসহ ৩টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্থাপিত হয়েছে। বরিশাল চেম্বার অব কমার্স সবসময় ব্যবসায়ীদের পাশে আছে। আমরা যেকোনো প্রয়োজনে ব্যবসায়ীদের সহায়তা করব।

পদ্মাসেতুকে কেন্দ্র করে দেশের জিডিপিতে দক্ষিণাঞ্চল অবদান রাখবে বলে মত প্রকাশ করেছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জ্যোতির্ময় বিশ্বাস। তিনি বলেন, পদ্মাসেতুর কারণে দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনীতি নতুন করে চাঙা হচ্ছে। দেশের জিডিপিতে পর্যায়ক্রমে বড় আকারে ভূমিকা রাখবেন এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীরা। এছাড়া এখানকার বেকারত্বও দূর হবে। বরিশালে পড়াশোনা করে বরিশালেই চাকরি বা ব্যবসা করতে পারবে এ অঞ্চলের যুবসমাজ।

বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার আমিন উল আহসান বলেন, গত ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু উদ্বোধনের পর মাত্র ৯০ দিনের মধ্যে দক্ষিণের জনপদে আমূল পরিবর্তন হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ব্যবসায়িক খাতকে বেগবান করতে বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন ব্যবসায়ীদের সব ধরনের সহায়তা করবে।