ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গ্রেফতার ৫০ রুশ সেনাকে মুক্তি দিয়েছে ইউক্রেন

গ্রেফতার হওয়া রাশিয়ার সেনাবাহিনীর ৫০ সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে ইউক্রেন। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই দাবি করা হয়েছে।
জানা গেছে, দুই দেশের মধ্যে বন্দি বিনিময়ের অংশ হিসেবে তাদের মুক্তি দেওয়া হয়েছে।
বৃহস্পতিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে অর্থাৎ দিনের শুরুর দিকে ইউক্রেনের দোনেৎস্ক অঞ্চলের রুশ প্রধান বলেন, ইউক্রেনের ৫০ জনকে মুক্তি দেওয়া হবে।

তবে ইউক্রেনে ফের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বাড়িয়েছে রাশিয়া। গতকাল দেশটির রাজধানী কিয়েভসহ বিভিন্ন শহরে অন্তত ৭০টি হামলা চালানো হয়।

এতে ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণে থাকা তিনটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র জাতীয় বিদ্যুৎ গ্রিড থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ফলে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে আবারও বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ বিঘ্নিত হচ্ছে।

ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার রুশ বাহিনী ইউক্রেনজুড়ে বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এর ফলে দেশব্যাপী বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ বিঘ্নিত হচ্ছে।

অন্যদিকে প্রতিবেশী দেশ ইউক্রেনের বিদ্যুৎ অবকাঠামোতে রুশ হামলার কারণে মলদোভাতেও বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দিয়েছে। দেশটির উপ-প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেই স্পিনু এক টুইটবার্তায় লিখেছেন, ইউক্রেনের জ্বালানি অবকাঠামোতে রুশ বাহিনীর হামলার পর মলদোভার অর্ধেকের বেশি এলাকা অন্ধাকারাছন্ন হয়ে আছে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। এরপর থেকেই দুই দেশের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ চলছে। পুতিন এরই মধ্যে ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল রাশিয়ার অন্তর্ভুক্ত করেছেন। যদিও খেরসনকে দখল মুক্ত করেছে ইউক্রেনের বাহিনী। এই যুদ্ধের শেষ পরিণতি সম্পর্কে এখনো কেউ সম্পষ্ট কোনো ধারণা দিতে পারছে না।