ঢাকা, রবিবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা বৈশাখ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভূমিকম্প: তুরস্কে ২০৪ ঘণ্টা পর পাঁচজন জীবিত উদ্ধার

তুরস্কে স্মরণকালের ভয়াবহ ভূমিকম্পের ২০৪ ঘণ্টা পর ধসে পড়া ভবন থেকে পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ভূমিকম্পের ৮ দিনের বেশি সময় পর মঙ্গলবার ঐ পাঁচজনকে উদ্ধার করেছেন তুরস্কের উদ্ধারকর্মীরা।
গত সোমবার স্মরণকালের ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হানে তুরস্ক ও সিরিয়ায়। রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে দুই দেশে এখন পর্যন্ত ৩৭ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। এদিকে হাজার হাজার ভবন ধসে পড়ায় প্রাণহানি দ্বিগুণের বেশি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

তুর্কি সংবাদমাধ্যম বলছে, মঙ্গলবার বিকেলে দেশটির হাতায় শহরের ধ্বংসস্তূপ থেকে এক নারী এক পুরুষকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। একইদিন সকালের দিকে তুরস্কের আদিমান প্রদেশের একটি ধসে যাওয়া ভবনের নিচ থেকে এক কিশোরকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত আদিমানের একটি ভবনের ধ্বংসাবশেষের নিচ থেকে ঐ কিশোরকে উদ্ধারের পর স্ট্রেচারে করে নেয়া হচ্ছে। এ সময় তার মুখে অক্সিজেন মাক্স ও হাতে স্যালাইন লাগানো দেখা যায়। পরে সেখান থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে স্থানীয় এক হাসপাতালে নেয়া হয় তাকে।

ভূমিকম্পে ধসে যাওয়া ভবনের নিচে আটকে পড়ার প্রায় ১৯৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার এই কিশোরকে স্ট্রেচারে করে নিয়ে যাওয়ার সময় হাতের আঙুল নড়াচড়া করতে দেখা যায়।

এ ঘটনার কিছুক্ষণ আগেই দেশটির উদ্ধারকারীরা পার্শ্ববর্তী কাহরামানমারাস প্রদেশের একটি ভবনের ধ্বংসাবশেষ থেকে দুই ভাইকে জীবিত উদ্ধার করেন।

তুরস্কের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তাসংস্থা আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে, কাহরামানমারাস প্রদেশের ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে ১৭ বছর বয়সী মুহাম্মদ এনেস ইয়েনিনার ও তার ভাই ২১ বছর বয়সী বাকি ইয়েনিনারকে উদ্ধার করা হয়েছে। পরে ধ্বংসস্তূপের পাশেই রাখা অ্যাম্বুলেন্সে করে একটি হাসপাতালে নেয়া হয় তাদের।

সূত্র: রয়টার্স