ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকা কলেজ ভর্তি-শিক্ষার্থীদের সহায়তায় সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ (যমুনা)

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের জন্য তথ্য সহায়তা, বিনামূল্যে মোবাইল, ব্যাগ, মানিব্যাগ গচ্ছিত রাখাসহ বিভিন্ন সহযোগিতামূলক কাজ করেছে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ (যমুনা)।

সিরাজগঞ্জ জেলার ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে গড়ে ওঠা এ সংগঠন ভর্তিচ্ছুদের সার্বক্ষণিক সেবা প্রদান করেন। কলেজের প্রধান ফটকে জেলার শিক্ষার্থীদের নিজস্ব উদ্যোগে এই সহায়তা ও সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। রোদ -বৃষ্টি উপেক্ষা করে দূর দূরান্ত থেকে আসা হাজারো ভর্তি পরীক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর এক অনন্য নজির গড়ে তুলেছেন তারা।

ডিসির প্রধান ফটক থেকে প্রায় ২০ টি জেলা সমিতির তথ্য কেন্দ্র রয়েছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের আবাসন ব্যবস্থা, পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছানো, যাতায়াতে সহায়তা ও তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করছে সমিতিগুলো। সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ প্রথমবারের মতো তথ্য সহয়তা কেন্দ্র স্থাপন করেন।

যেখান থেকে ভর্তিচ্ছুদের পরীক্ষা কেন্দ্র সম্পর্কে অবগত করার পাশাপাশি তাদের সাথে থাকা ব্যাগ ও অন্যান্য জিনিসপত্র পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বিনামূল্যে নিজেদের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়।

সিরাজগঞ্জ জেলা থেকে আগত শিক্ষার্থীরা বলেন,ভর্তি পরীক্ষা দিতে এসেছি কিন্তু ক্যাম্পাসে পরিচিত কেউ ছিল না ফলে খুব অসহায় হয়ে পড়েছিলাম। কিন্তু জেলা সমিতির কাছে এসে জানালে তারা আমাকে বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করেছে। আমি সকলের কাছে এজন্য কৃতজ্ঞতা জানাই।

সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ সদস্য এনামুল হক বলেন, সিরাজগঞ্জ থেকে আগত শিক্ষার্থীদের সর্বোচ্চ সাহায্য করার চেষ্টা করছে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ।এবছরের ন্যায় এবারও আমরা আগত শিক্ষার্থীদের হলে থাকার ব্যবস্থা, কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া, ব্যাগ রাখাসহ যাবতীয় সহযোগিতা করবো।”

অন্য সদস্যরা বলেন, “আমরা শিক্ষার্থীদের মাঝে একটি কলম একটি করে পানির বোতল উপহার হিসেবে শিক্ষার্থীদের দিয়েছি।”আমরা শুধু আমাদের সিরাজগঞ্জ জেলার শিক্ষার্থী নয় বরং অন্য জেলার শিক্ষার্থীদের আমরা সহযোগিতা করেছি। আমরা সকাল আটটা থেকে এ কার্যক্রম পরিচালনা করছি যা দুপুর একটাই শেষ হয়।পরবর্তী পরীক্ষাগুলোতে আমরা এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখবো।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো.মোস্তাফিজুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে শুরু হচ্ছে এবারের সাত কলেজের আন্ডারগ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামের ভর্তি কার্যক্রম। এবার ৯ হাজার ৯৭৯টির বিপরীতে আবেদন করেছেন ২৩ হাজার ৭৮৯ জন ভর্তিচ্ছু।সে হিসাবে প্রতি আসনের জন্য লড়বেন দুজন ভর্তিচ্ছু।