এরশাদের অবস্থার অবনতি, ঠিকমতো কাজ করছে না অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ

শুক্রবার, ০৫ জুলাই ২০১৯ | ৮:৫৩ পূর্বাহ্ণ | 10 বার

এরশাদের অবস্থার অবনতি, ঠিকমতো কাজ করছে না অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ

রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভাই ও পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তিনি বলেন, তার বেশকিছু অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ঠিকভাবে কাজ করছে না।

আজ বৃহস্পতিবার রাতে জাতীয় পার্টির বনানী অফিসে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা নিয়ে ব্রিফকালে তিনি এ কথা বলেন।

জি এম কাদের বলেন, ‘লাইফ সাপোর্টে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাসের পাশাপাশি এরশাদকে ঘুমের ও ব্যথানাশক ওষুধ দেয়া হচ্ছে। তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ফুসফুসের সংক্রমণ কমলেও শ্বাস কষ্ট হচ্ছিল। আবার কিডনি কিছুটা কাজ করলেও তার শরীর থেকে বর্জ্য বের হচ্ছিল না। তাই সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে লাইফ সাপোর্ট দেন।’

সিএমএইচের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে জি এম কাদের বলেন, ‘সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি হাসপাতালের চিকিৎসকদের কাছে পল্লীবন্ধুর সব রিপোর্ট মেইল করা হয়েছে। কিন্তু সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকরা এমন শারীরিক অবস্থায় এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে পল্লীবন্ধুকে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়াকে সমর্থন করেননি।’

তিনি আরও বলেন, ‘সিএমএইচের চিকিৎসকরা নিরলসভাবে চিকিৎসা দিচ্ছেন পল্লীবন্ধুকে সুস্থ করে তুলতে। নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে পল্লীবন্ধুর শারীরিক উন্নতি ও অবনতি বিবেচনায় চিকিৎসা দিচ্ছেন। দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছেন সিএমএইচের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।’

এ সময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভ্রান্তিকর কোনো তথ্যে দেশবাসী ও গণমাধ্যমকর্মীদের বিভ্রান্ত না হতে অনুরোধ জানান। একই সঙ্গে এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতার জন্য দোয়া করতে দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, মো. আজম খান, জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, উপদেষ্টা মো. সেলিম উদ্দিন, মেজর (অব.) আশরাফ উদ দৌলা, ভাইস চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ, যুগ্ম মহাসচিব হাসিবুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম মিলন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মো. হেলাল উদ্দিন, আহাদ চৌধুরী শাহীন, রাজ্জাক খান প্রমুখ।

এদিকে এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন তার স্ত্রী জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান এবং বিরোধীদলীয় উপনেতা বেগম রওশন এরশাদ।

আজ বেলা আড়াইটায় জি এম কাদের ও রওশন এরশাদ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে এরশাদকে দেখতে যান। এ সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সুনীল শুভরায়, মেজর (অব.) খালেদ আকতার, আলমগীর সিকদার লোটন, যুগ্ম মহাসচিব এস এম ইয়াসিরসহ জাতীয় পার্টির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের আইসিইউ থেকে বের হয়ে বেগম রওশন এরশাদ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন। শুক্রবার দেশের সব মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ ধর্মীয় উপসনালয়ে এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতা কামনায় দোয়া করতে অনুরোধ জানান তিনি।

এর আগে জানা যায়, রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত, বিদেশে নেয়ার অবস্থা নেই। তবে উন্নতির আশা রয়েছে বলে জানান তার ভাই জি এম কাদের। এরশাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চান তিনি।

আজ রাতে ব্রিফকালে পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেন, ‘এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত, বিদেশে নেয়ার অবস্থা নেই। তবে উন্নতির আশা করছেন চিকিৎসকরা।’

গত ২২ জুন বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসভবনে অসুস্থ হয়ে পড়লে এরশাদকে দ্রুত সিএমএইচে নেয়া হয়।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এরশাদের রক্তে হিমোগ্লোবিনের সমস্যা ধরা পড়ে। দুই দফায় সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নিয়ে এলেও তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। এই দফায় সিএমএইচে ভর্তি হলে এরশাদের ফুসফুস ও কিডনিতে সংক্রমণ ধরা পড়ে।

ইনজেকশন দিয়ে অজ্ঞান করে অসংখ্য তরুণীকে দিনের পর দিন ধর্ষণকারী ভুয়া ডাক্তার গ্রেফতার!

Development by: Creative it Solution