ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফেসবুক জনস্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক: গবেষণা

সময়ের ব্যবধানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বিশ্বে প্রায় ২শ কোটি মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করেন। তবে এর সমালোচনাও কম নেই।

ফেসবুকের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বড় সমালোচনা হয় তথ্য চুরি ও ভুল তথ্য ছড়ানো নিয়ে। এসব কারণে ফেসবুককে জনস্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক বলে একটি গবেষনায় এতথ্য উঠেছে এসেছে।

বিবিসি জানায়, করোনাকালে ফেসবুকে মানুষের পোস্ট নিয়ে একটি গবেষণা চালায় যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সংগঠন আভাজ।

গবেষণায় দেখা গেছে, গত এক বছরে মানুষ ফেসবুকে ৩৮০ কোটি বার ভুল তথ্য দেখেছে। এটি চরমে পৌঁছে কভিড-১৯ মহামারির সবচেয়ে সংকটজনক সময়ে। যার কারণে জনস্বাস্থ্যের জন্য এক বড় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে ফেসবুক।

চিকিৎসকরা হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে করোনার ভ্যাকসিন সম্পর্কে যেসব অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তার ফলে এ ভাইরাসের ভ্যাকসিনের সন্ধান পাওয়া যাবে, তখন হয়তো অনেক মানুষ এই ভ্যাকসিন নিতে চাইবে না।

তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে, তা এই প্রতিবেদনে প্রতিফলিত হয়নি। এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি বলছে, ‘অপপ্রচার রুখতে আভাজের এই লক্ষ্যের সঙ্গে আমরাও এক মত। কিন্তু গত এপ্রিল হতে জুন পর্যন্ত আমরা কভিড-১৯ এর ব্যাপারে ভুল তথ্য সম্বলিত ৯ কোটি ৮০ লাখ পোস্টের বিরুদ্ধে সতর্কবাণী দিয়েছি এবং ৭০ লাখ পোস্ট সরিয়ে নিয়েছি।

বিশ্বজুড়ে প্রতিষ্ঠানটির ‘ফ্যাক্ট চেকার্স’ বা তথ্য যাচাইকারীদের নেটওয়ার্কের মাধ্যমে এটা করা হয়েছে বলেও ফেসবুক দাবি করে।