ঢাকা, রবিবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রামগড় পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে ছোট ভাইকে গুলির অভিযোগ

পারিবারিক বিরোধের জেরে আপন ছোট ভাইকে গুলি করার অভিযোগ উঠেছে খাগড়াছড়ির রামগড় পৌরসভার মেয়র কাজী শাহজাহান রিপনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আরেক সহোদর মাথায় আঘাত পেয়েছেন।

রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার সোনাইপোল এলাকায় মেয়রের নিজ বাড়ি কাজী ভিলায় এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ কাজী শাহরিয়ার ইসলাম সাহেদকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। আরেক সহোদর জিয়াউল হক শিপন মাথায় আঘাত পেয়ে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

রামগড় পৌরসভার মেয়র কাজী শাহজাহান রিপনের আরেক সহোদর কাজী সাইফুল ইসলাম শিমুল জানান, দীর্ঘদিন ধরে অন্যায়ভাবে পারিবারিক সম্পত্তি জোর করে দখল এবং বিপুল অঙ্কের টাকা আত্মসাতের কারণে মেয়র কাজী রিপনের সঙ্গে ভাইদের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। যার পরিপ্রেক্ষিতে এ ঘটনা ঘটে।

শিমুল আরও জানান, বাজারে কাজ শেষে নিজ বাড়িতে প্রবেশের মুহূর্তেই মেয়র কাজী রিপন এবং জিয়াউল হক শিপন এসেই সাহেদকে কিল-ঘুষি মেরে মাটিতে ফেলে দেন। একপর্যায়ে কাজী রিপন ক্ষিপ্ত হয়ে সাহেদের পায়ে একাধিক গুলি করেন। এতে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়লে স্থানীয়রা সাহেদকে উদ্ধার করে রামগড় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

তার অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাহেদকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন।

রামগড় থানার ওসি মোহাম্মদ শামসুজ্জামান জানান, পৌর মেয়র কাজী রিপন এবং তার ভাইদের মধ্যে পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছে। পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে ভাইদের মধ্যে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

গুলিবিদ্ধ ও মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে দুভাই চিকিৎসাধীন আছেন। তবে এ নিয়ে থানায় এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষই অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তের মাধ্যমে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।