ঢাকা, সোমবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ইউরোপের ১৬ দেশে কোভিশিল্ড অনুমোদন, ভ্রমণে বাধা কাটলো

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান আদর পুনেওয়ালা বলেছেন, ‘ভারতের তৈরি কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন এখন ইউরোপের ১৬টি দেশে স্বীকৃত হয়েছে। আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীরা যারা কোভিশিল্ড টিকা গ্রহণ করবেন তাদের সেসব দেশে প্রবেশে বাধা নেই। এটা সত্যিই একটি ভালো খবর।’

ভ্রমণকারীদের বিভিন্ন দেশের ভ্রমণের আগে বিধি-বিধান পড়ে নিতেও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। কেননা সব দেশের বিধি-নিষেধ একরকম হয় না। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘টিকাগ্রহণ করা থাকলেও কিছু কিছু দেশে প্রবেশের ক্ষেত্রে তাদের সুনির্দিস্ট নিয়ম-কানুন রয়েছে। সেগুলো একবার দেখে নেওয়া প্রয়োজন।’

সম্প্রতি সময়ে কোভিশিল্ডের কার্যকারিতা নিয়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত দেশের মধ্যে বেশ আলোচনা হয়েছে। এটি আদৌ মানবদেহে ইমিউনিটিতে প্রভাব ফেলে কিনা এই ব্যাপারে বহু দেশ দ্বিধান্বিত ছিল। বিশ্বের কয়েকটি দেশে কোভিশিল্ড প্রয়োগ বন্ধ রাখার পর থেকে এটিকে অনুমোদন দিতে অস্বীকৃতিও জানিয়েছেন তারা।

তবে কিছু দেশ ভ্যাকসিনটির ওপর আস্থা রেখেছে। তারা নিজেদের দেশে নাগরিকদের উপর এই ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রেও ইতিবাচক অবস্থানে রয়েছেন। স্বীকৃতি দেওয়া ইউরোপিয়ান দেশগুলো হচ্ছে- অষ্ট্রিয়া,বেলজিয়াম, বুলগেরিয়া, ফিনল্যান্ড, জার্মানি, গ্রীস, হাঙ্গেরী, আইসল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, লাটভিয়া, নেদারল্যান্ডস, স্লোভেনিয়া, স্পেন, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড। সর্বশেষ দেশ হিসেবে ফ্রান্সও কোভিশিল্ডকে স্বীকৃতি দিয়েছে।

শনিবার (১৭ জুলাই) ফ্রান্স ভ্যাকসিন প্রাপ্তদের ভ্রমণের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে। ফ্রান্সের ইউরোপ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও বিদেশ ভ্রমণ বিষয়ক পরামর্শ কমিটি এই সংক্রান্ত একটি গেজেট প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, পূর্ণ ভ্যাকসিনপ্রাপ্ত ভ্রমণকারীরা ফ্রান্সে ভ্রমণের ক্ষেত্রে কিংবা ফ্রান্স থেকে বাইরের দেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে বাধার সস্মুখিন হবেন না। তবে ব্যক্তিগত সতর্কতা হিসেবে রেড জোনে থাকা দেশগুলোতে ভ্রমণ থেকে বিরত থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি