ঢাকা, সোমবার, ২৫শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শরীয়তপুরে মহিলাকে মারপিটের ঘটনার ভিডিও চিত্র ধারণ করায় সাংবাদিকের উপর হামলা

শরীয়তপুর পৌর সভায় সন্ত্রাসীরা সাংবাদিক রোকনুজ্জামান পারভেজকে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে। সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে পালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন সাংবাদিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এ হামলার ঘটনা ঘটে। তাঁকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত রোকনুজ্জামান পারভেজ (৪০) এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি এবং শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি।

ওই সাংবাদিক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোকনুজ্জামান পারভেজ তার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে ছিলেন। দুপুরে হঠাৎ দোকানের সামনে শরীয়তপুর পৌরসভার উত্তর পালং গ্রামের আবুল কাশেম মাদবরের পুত্র নাজমুল মাদবর ও নাঈম মাদবরের নের্তৃত্বে ২০/২৫ জন লোক এসে নাজনীন নাহার শ্যামলী নামে এক নারীকে রড, লাঠি দিয়ে মারধর করছিল। আত্মরক্ষা করতে সাংবাদিক পারভেজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রড-সিমেন্টের দোকানে ঢুকে পরে ওই নারী। এসময় দোকানের থেকে ভিডিও চিত্রধারন করেন এবং সন্ত্রাসীদেরকে তার দোকান থেকে বের হতে বলে পারভেজ। ভিডিও চিত্রধারন করায় সংবাদিক পারভেজের উপওে মারমূখী হয়ে সন্ত্রাসীরা ভিডিও করছস কেন বলে পারভেজকে কিল-ঘুষি মারে ও রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। ঘটনা স্থল থেকে পারভেজকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে পালং মডেল থানা পুলিশ ।

হামলাকারী নাজমুল মাদবর ও নাঈম মাদবরের পিতা আবুল কাশেম মাদবর বলেন, আমি এই বিষয়ে কিছু জানিনা। যদি আমার ছেলেরা এধরণের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে। তাদের বিচার করা হোক।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আক্তার হোসেন বলেন, আহত অবস্থায় তাকে সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে। তদন্ত করে হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে।