ঢাকা, রবিবার, ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

অন্ধ্র প্রদেশে বন্যায় ১৭ জনের প্রাণহানি, নিখোঁজ শতাধিক

ভারতের অন্ধ্র প্রদেশে এক দিনে ২০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিতে হওয়া বন্যায় এখন পর্যন্ত আটজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, প্রদেশের রায়ালসীমা জেলা ও দক্ষিণ উপকূলীয় জেলায় এই প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। এখন পর্যন্ত বন্যায় অন্তত ১২ জন নিখোঁজ রয়েছেন।
দেশটির বিমানবাহিনী, এসডিআরএফ এবং ফায়ার সার্ভিস ১০ জনকে উদ্ধারের খবর জানিয়েছে।

পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টেলিফোনে কথা বলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জগন মোহন রেড্ডির সঙ্গে। বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের নির্দেশ দিয়েছেন। এক বিজ্ঞপ্তিতে মুখ্যমন্ত্রী এরইমধ্যে বিষয়টি নিয়ে প্রাথশিক এক জরিপ করার কথা জানিয়েছে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

নদী ও নালাগুলো পানিতে টইটম্বুর হয়ে দুপাশের জেলাগুলোয় বন্যার সৃষ্টি করেছে। এতে ভেঙে গেছে বেশ কিছু সড়ক, বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। বেশ কিছু এলাকার সড়কগুলো পরিণত হয়েছে নালায়। অনেক গাড়ি ভেসে যেতেও দেখা গেছে।

তিরুপতি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কয়েকদিন বন্ধ থাকার পর শনিবার থেকে ফ্লাইট চলাচল আবারও শুরু হয়েছে। তবে তিরুমালা পাহাড়ে যাতায়াত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

তীর্থযাত্রীদের নিরাপদ আশ্রয়ে নিতে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী জগন মোহন। এরইমধ্যে বন্যাকবলিত কাডাপা জেলায় ৩২টি ত্রাণ বিতরণ কেন্দ্র চালু করেছে রাজ্য সরকার।

নিখোঁজদের উদ্ধারে বাহিনীগুলো হেলিকপ্টারসহ অন্যান্য যান ও নৌযান নিয়ে কাজ করছে বলে জানানো হয়েছে।

দক্ষিণাঞ্চলের রেল কর্মকর্তারা জানান, তাদের অন্তত ১১টি ট্রেনের যাত্রা বাতিল হয়ে গেছে। বেশ কয়েকটি ট্রেন ওই এলাকায় প্রবেশ করতে না দিয়ে অন্য পথে পাঠানো হয়েছে।