সালমান খান ভূমিদস্যু!

মঙ্গলবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৪:২৯ অপরাহ্ণ | 55 বার

সালমান খান ভূমিদস্যু!

বিনোদন ডেস্ক : সালমান খানের ‘দাবাং’ সিরিজের চুলবুল পাণ্ডে এখনো স্পষ্ট ভক্তদের স্মৃতিতে। ওই যে বিশাল হৃদয়ের অন্য রকম এক পুলিশ কর্মকর্তা, যিনি থানার ভেতরই বেল্ট ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে সহকর্মীদের সঙ্গে ‘দাবাং দাবাং’ বলে নাচেন। এই সিরিজের প্রথম দুই ছবি ‘দাবাং’ (২০১০) আর ‘দাবাং টু’ (২০১২) বলিউডের ব্যবসাসফল ছবিগুলোর মধ্যে অন্যতম। সেই ছবিতে প্রথম দেখায় ‘রাজ্জো’ সোনাক্ষী সিনহাকে ভালোবেসে ফেলেন বলিউডভক্তরা। সালমান খানের হাত ধরেই বলিউডে অভিষেক হয় সোনাক্ষী সিনহার। এবার সিরিজের তৃতীয় ছবিতেও ‘রাজ্জো’ চরিত্রে থাকছেন সোনাক্ষী। প্রযোজক সালমান খানের বড় ভাই আরবাজ খান। সব আগের মতোই আছে, শুধু বদলে গেছে চরিত্র। পুলিশ কর্মকর্তা চুলবুল পাণ্ডে এবার হবেন ভূমিদস্যু, এমনটাই জানিয়েছেন এই ছবির একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র।

১ এপ্রিল থেকে মধ্যপ্রদেশের মহেশ্বরে পুরো দল দিয়ে মহাসমারোহে শুরু হয়েছে শুটিং। এখানে টাইটেল গান, কিছু মারামারির দৃশ্য শুট করা হয়। শোনা যাচ্ছে, এই ছবিতে চুলবুল পাণ্ডে একাধিকবার অতীতে ফিরে যাবেন। দর্শকেরা জানবেন, পুলিশ চুলবুল পাণ্ডের অতীত। পুলিশে যোগ দেওয়ার আগে চুলবুল পাণ্ডে ছিলেন নিতান্তই হাবাগোবা আর হৃদয়বান একজন মানুষ। পরিস্থিতি তাঁকে খাকি পোশাকের পুলিশ বানিয়ে দেয়। কিন্তু পুলিশ হয়েও হৃদয় খুইয়ে ফেলেননি চুলবুল পাণ্ডে। ‘দাবাং থ্রি’র পটভূমিতে এবার সেই পুলিশ হবেন একজন ভূমিদস্যু।

মহেশ্বরে শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা সালমান খান বললেন এভাবে, মহেশ্বরকে তিনি নিজের বাড়ি বলেই মনে করেন। কেননা তাঁর এক দাদা সেই এলাকায় পুলিশ কর্মকর্তা ছিলেন। চুলবুল পাণ্ডে নাকি তাঁর মধ্যে সেই পুলিশ কর্মকর্তা দাদার ছায়া দেখছে!

বছর কয়েক আগে মাথায় চাঁটি পরা একদল ক্ষমতাশীল মাফিয়া গোষ্ঠী জোর করে ভূমি দখল করে খবরের শিরোনাম হয়। ওই ঘটনার সঙ্গে রাজনৈতিক যোগসূত্র আছে কি না, তা জানতে পুলিশ কর্মকর্তা চুলবুল পাণ্ডেও ভূমিদস্যু সাজে। এভাবেই ‘দাবাং থ্রি’র কাহিনি সম্পর্কে আভাস দেন সেই সূত্র।

চলচ্চিত্রে মাফিয়াদের সঙ্গে রাজনৈতিক যোগাযোগ আছে কি না, সেটা তো পরের ব্যাপার। ছবির শুটিং যে ইতিমধ্যে রাজনৈতিক বাগ্‌বিতণ্ডার জন্ম দিয়েছে, তা আর জানতে বাকি নেই কারও। এই ছবির শুটিংয়ে সালমান খান নাকি হিন্দুদের ধর্মানুভূতিতে আঘাত হেনেছেন, এমন খবর বাতাসের আগে ছড়িয়ে পড়ে। হয়েছে কী, এই ছবির গানের শুটিংয়ে দেখা যায়, সালমান খান কাঠের তৈরি একটা মঞ্চের ওপর নাচছেন। আর সেই স্টেজের নিচে পড়ে আছে হিন্দুদের পূজনীয় শিবলিঙ্গ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কল্যাণে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় সেই ছবি। আর নির্বাচনকে সামনে রেখে বিজেপির সমর্থকেরা তার পূর্ণ ফায়দা লুটতে ভুল করেনি। ভূপালের বিজেপি নেতা রামেশ্বর শর্মা বলেছেন, ‘শিবলিঙ্গ অবমাননার দায়ে সালমানের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।’ অন্যদিকে বিষয়টিকে ‘ইচ্ছাকৃতভাবে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করছে বিজেপি’ বলে উড়িয়ে দেয় কংগ্রেস। অন্যদিকে সালমান খান জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে দৃশ্যটি সরিয়ে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ঘটনাটি অনাকাঙ্ক্ষিত। আমি নিজেই একজন শিবভক্ত। শিবলিঙ্গ অবমাননা করার প্রশ্নই আসে না।’

ছবিতে সোনাক্ষী সিনহা থাকবেন কি থাকবেন না, তা নিয়েই সংশয় ছিল। শোনা গিয়েছিল, সোনাক্ষীর সঙ্গে সালমানের সম্পর্কে ফাটল ধরায় সোনাক্ষীর জায়গা নেবেন সালমানের সাবেক প্রেমিকা ইউলিয়া ভানতুর। পরে জানা যায়, ইউলিয়া নয়, সালমান ‘দাবাং থ্রি’ ছবিতে আবারও আনবেন নতুন মুখ। ‘রাজ্জো’ হবেন বলিউডের অভিনেতা, পরিচালক, প্রযোজক ও লেখক মহেশ মাঞ্জরেকারের মেয়ে অশ্বামি মাঞ্জরেকার। এখন শোনা যাচ্ছে, সোনাক্ষী সিনহা ছাড়া নাকি আরও একজন নায়িকা থাকবেন এই ছবিতে। সেই নায়িকা চুলবুল পাণ্ডের অতীতের সঙ্গে সম্পর্কিত, যখন চুলবুল পাণ্ডে পুলিশ কর্মকর্তা হননি। কিন্তু কে হবেন এই নায়িকা, তা এখনো জানা যায়নি।

সালমান খানকে বলা হয় বক্স অফিস ‘হিট মেশিন’। ‘দাবাং’ সিরিজের আগের দুটি ছবি এর উদাহরণ। ২০১০ সালে ‘দাবাং’ প্রায় ১৩৯ কোটি রুপি আয় করে। ২০০২ সালে ‘দাবাং টু’ ছাড়িয়ে যায় প্রথম ছবিকেও। এই ছবি ১৫৫ কোটি রুপি আয় করেছে। তাই ‘দাবাং থ্রি’ যে আগের দুটি ছবিকে ছাড়িয়ে যাবে, সেই আশা মোটেই উচ্চাকাঙ্ক্ষা নয়।

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের মহাসচিব গ্রেফতার

Development by: Creative it Solution