পোশাক খাত থেকে প্রথম ৯ মাসে মোট আয়ের ৮৩ভাগ

মঙ্গলবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৪:৫২ অপরাহ্ণ | 41 বার

পোশাক খাত থেকে প্রথম ৯ মাসে মোট আয়ের ৮৩ভাগ

অনলাইন ডেস্ক : রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরো কর্তৃক প্রকাশিত অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসের রপ্তানীর হালনাগাদ তথ্য বিশ্লেষনে দেখা যায়, শুধু পোশাক খাত থেকেই ২৫ দশমিক ৯৫ বিলিয়ন ডলার মূল্যের তৈরি পোশাক পণ্য রপ্তানি হয়েছে। গত অর্থবছরের একই সময়ে পোশাক পণ্য রপ্তানি হয়েছিল ২২ দশমিক ৮৪ বিলিয়ন ডলার। রপ্তানি আয়ের সবচেয়ে এই খাতে এক বছরের ব্যবধানে প্রবৃদ্ধি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ। ফলে চলতি অর্থবছরেই পোশাক খাত থেকে ৩২ দশমিক ৬৮ বিলিয়ন ডলার রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশা করছেন এই খাতের ব্যবসায়ীরা

তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, সরকারের পাশাপাশি তৈরি পোশাক মালিকরা নিজ নিজ উদ্যোগে নিজেদের পণ্যের ব্র্যান্ডিং তৈরি করছেন।
নতুন নতুন পণ্য উৎপাদনের পাশাপাশি আমরা নতুন বাজারগুলোতে রপ্তানি বাড়াতে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি। এর ফলেই উত্তোরত্তোর এ খাতের রপ্তানি প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে চলতি অর্থবছরের রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়া অসম্ভব কিছু না বলে আমি মনে করি। একই কথা বলেন নীট পোশাক মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএ এর সহ-সভাপতি ফজলে শামীম এহসান। তিনি বলেন, নতুন বাজারগুলোতে আমাদের রপ্তানী হার দিন দিন বেড়েই চলছে। আমরা শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি নিশ্চিত করতে সক্ষম হয়েছি। আশা করছি সরকারি কোনো বাঁধার সম্মুখিন না হলে আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়া কেউ ঠেকাতে পারবে না।

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনও বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের পোশাক খাতের যে প্রবৃদ্ধি হচ্ছে তা অবশ্যই সন্তোষজনক। এই ধারা অব্যাহত থাকলে প্রবৃদ্ধি কাক্সিক্ষত লক্ষ্যমাত্রাকে ছাড়িয়ে যাওয়া খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু এর পেছনেও কিছু চ্যালেঞ্জ রয়ে গেছে। ব্যাংক ঋণের অধিক সুদ হার এবং বিশ্ববাজারে পণ্যের মূল্য কমে যাওয়ার বিপরীতে ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে গিয়ে অনেক ব্যবসায়ী ‘অস্তিত্বের সঙ্কটে পড়ছেন’। এর জন্য সরকারকে ব্যবসা ও বিভিন্ন খাতের প্রতি আরও যত্নবান হতে হবে। কেবল দুই একটি পণ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে নতুন নতুন রপ্তানি পণ্য সৃষ্টি করতে হবে।

সম্পর্কের অবনতি ঘটলেই ধর্ষণের অভিযোগ, হয়রানির শিকার পুরুষরা

Development by: Creative it Solution